আট শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

0
56

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে বেলাল হোসেন দফাদার (৩৯) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অন্তত আটটি শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। বুধবার (২২ জুলাই) গভীর রাতে চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানার শান্তিনগর আবাসিক এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত বেলাল আগে বায়েজিদ বোস্তামি এলাকায় থাকতো। বর্তমানে সীতাকুণ্ড উপজেলার কালু শাহ মাজার এলাকায় বসবাস করছিল। পুলিশ দাবি করেছে, বেলাল ‘সিরিয়াল শিশু ধর্ষক’।

নগর পুলিশের উপ কমিশনার (উত্তর জোন) বিজয় বসাক বলেন, সাম্প্রতি নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি এলাকায় পাঁচ, আকবর শাহ এলাকায় দুই ও খুলশী এলাকায় একজনসহ বিভিন্ন বয়সী আট শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। এসব ঘটনা অনুসন্ধানে পুলিশ বেলাল দফাদারের সম্পৃক্ততার তথ্য পায় পুলিশ। এরপর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে বুধবার রাতে তাকে গ্রেফতার করতে শান্তিনগর আবাসিক এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বেলাল ও তার সহযোগীরা পার্শ্ববর্তী পাহাড়ে অবস্থান নেয়। পরে পুলিশ পাহাড়ের দিকে এগিয়ে গেলে বেলালের সহযোগীদের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধ হয়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে বেলাল মারা যায়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

বায়েজিদ থানা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, ২০১৬ সালে বায়েজিদ এলাকায় এক শিশুকে ধর্ষণের জন্য অটোরিকশায় তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় জনতা তাকে ধরে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছিল।বছর খানেক আগে জামিনে বেরিয়ে আসে বেলাল। এরপর গত জানুয়ারি থেকে সে আবারও বায়েজিদ এলাকায় আসতে শুরু করে। বেলাল বায়েজিদে আসা যাওয়া শুরুর পর এই এলাকায় শিশু ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যায়। গত ছয় মাসে আট শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। চকলেটের লোভ দেখিয়ে, টাকা দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে সিএনজি অটোরিকশায় তুলে পাহাড়ে নিয়ে তাদের ধর্ষণ করা হয়। সর্বশেষ গত ১৫ দিনে দুটি শিশু ধর্ষণের শিকার হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here