বীর প্রতীক বদিউজ্জামান টুনু আর নেই

0
19

রাজশাহী প্রতিনিধি: বীর প্রতীক বদিউজ্জামান টুনু রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯১ বছর।

গতকাল রবিবার দিনগত রাত ১২টার দিকে রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ বীর মুক্তিযোদ্ধা মারা গেছেন।

কবি আরিফুল হক কুমার তার মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। রাজশাহীর সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কবি আরিফুল হক কুমারের চাচা শ্বশুর তিনি।

পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, বার্ধক্যজনিত কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই শারীরিক নানা সমস্যায় ভুগছিলেন বদিউজ্জামান টুনু। তার পা ভেঙে গিয়েছিল। সপ্তাহখানেক আগে তিনি স্ট্রোক করেন। এরপর তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর তাকে বাসায় নেওয়া হয়েছিল। গত শনিবার তিনি আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর তাকে আবারও রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রোববার দিনগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়।

প্রায় দুই বছর আগে বদিউজ্জামান টুনুর স্ত্রী ফিরোজা বেগম মারা গেছেন। তার দুই ছেলে তিন মেয়ে। এদের মধ্যে এক ছেলে থাকেন কানাডায়। আর এক মেয়ে থাকেন অস্ট্রেলিয়ায়। অন্য দুই মেয়ে থাকেন ঢাকায়। আর এক ছেলে থাকেন ঝাউতলার বাসায়।

১৯৭১ সালে একটি ওষুধ কোম্পানিতে কর্মরত থাকা অবস্থায় তিনি মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। ভারতে গিয়ে সশস্ত্র যুদ্ধের প্রশিক্ষণ নেন। গেরিলাযুদ্ধের পাশাপাশি সম্মুখযুদ্ধে সাহসীকতা প্রদর্শন করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here