রায়হান কবির ১৪ দিনের রিমান্ডে

0
90

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: আলজাজিরাকে সাক্ষাৎকারে মালয়েশিয়ায় আটকে পড়া অভিবাসীদের ওপর নিপীড়নের বর্ণনা দেওয়ায় গ্রেপ্তার বাংলাদেশি রায়হান কবিরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ। মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমির হামজা জয়নুদ্দিনকে উদ্ধৃত করে এ তথ্য জানিয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যম।

এ দিকে রায়হান কবিরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাচ্ছে মালয়েশিয়া। দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ এ কথা জানিয়েছে। এ ছাড়া তার মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে বলে জানায় সংস্থাটি। এর আগে তার ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করা হয়।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমির হামজা জয়নুদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার থেকে তার ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে এবং আমরা যথাযথ তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।

রায়হান কবিরের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায়। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আলজাজিরার একটি প্রামাণ্যচিত্রে করোনাভাইরাস-জনিত লকডাউনের সময় মালয়েশিয়ায় আটকে পড়া অভিবাসীদের ওপর নিপীড়নের বর্ণনা দেন কবির। এই অভিযোগে গত ১২ জুলাই তার ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করা হয়। গত রোববার কবিরকে আত্মসমর্পণ করার আহ্বান জানান মালয়েশিয়ার পুলিশ প্রধান আবদুল হামিদ বদর। শুক্রবার সন্ধ্যায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

‘লকড-আপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শিরোনামে আলজাজিরার ওই প্রামাণ্যচিত্রে অভিবাসী শ্রমিকদের নিপীড়নের চিত্র তুলে ধরা হয়। চলতি মাসের শুরুতে সেটি প্রচার করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ আলজাজিরা টেলিভিশন চ্যানেলের বিরুদ্ধেও মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে তদন্ত শুরু করে। আলজাজিরার ছয় কর্মীকে পুলিশ তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

মালয়েশিয়ার মানবাধিকার সংগঠনগুলো সরকারের প্রতি তদন্ত বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বলেছে, এটা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের পরিপন্থি। এদিকে বাংলাদেশের ২১টি সংগঠন মালয়েশিয়া সরকারের পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছে। তারা বলেছে, এটা গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের নির্লজ্জ দৃষ্টান্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here