সাহেদ যেখানেই থাকুক পার পাবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

0
58

সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার: জালিয়াতির অভিযোগে পলাতক রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো. সাহেদ এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে- এ প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলছেন, সাহেদ যেখানেই থাকুক সে পার পাবে না। গ্রেফতারের জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সচেষ্ট রয়েছে।

শুক্রবার ধানমণ্ডির বাসভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। অভিযানের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন করে শাহেদ পরামর্শ নেওয়ার চেষ্টা করেন বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, যত ক্ষমতাবানই হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, সাহেদ তাকে ফোন দিয়ে জানান তার হাসপাতালের সবকিছু সিল করে দেয়া হচ্ছে। কোনো খারাপ কাজ করেছেন দেখেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসব করেছে। কোন কিছু বলার থাকলে আদালতর গিয়ে বলতে বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সংসদ সদস্যকেও ছাড় দেননি। দলীয় নেতাদেরও তিনি ছাড় দিচ্ছেন না। যার (সাহেদ) কথা বলছেন, যত বড় ক্ষমতাবানই হোক না কেন, যদি প্রমাণিত হয়— তাকে ছাড় দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। তাকে (সাহেদ) ধরার জন্য অনুসন্ধান চলছে। র‌্যাব ও পুলিশ উভয়েই খুঁজছে। আমরা মনে করি, খুব শিগগিরই তথ্য দিতে পারবো।

গত সোমবার থেকে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজধানীর উত্তরায় ১১ নম্বর সেক্টরে সাহেদের মালিকানাধীন রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায়। বিনামূল্যে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সঙ্গে চুক্তি থাকলেও র‌্যাবের অভিযানে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানটি সাধারণ রোগীদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। অন্তত ছয় হাজার মানুষকে করোনা টেস্টের ভুয়া সনদ দিয়েছে। অনুমোদন না থাকলেও রিজেন্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাসায় গিয়ে করোনা নমুনা সংগ্রহ করে তা ফেলে দিয়ে সরকারি প্রতিষ্ঠানের নামে ভুয়া পজিটিভ ও নেগেটিভ রিপোর্ট তৈরি করে আসছিল। উত্তরায় অবস্থিত এই হাসপাতালটির পাশাপাশি মিরপুরে সাহেদের মালিকানাধীন রিজেন্ট হাসপাতালেও অভিন্ন চিত্র পায় র‌্যাবে। এরপর রোগী সরিয়ে দুটি হাসপাতালই সিলগালা করে দেওয়া হয়। রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে ওই দিনই উত্তরা পশ্চিম থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here