সৌদির সঙ্গে মিল রেখে দেশের কয়েকটি স্থানে পালিত হচ্ছে ঈদুল আজহা

0
43

গ্লোবালভিশন ডেস্ক: সৌদি আরব ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে আজ উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে এসব গ্রামে ঈদ উদযাপনের এই রেওয়াজ চলে আসছে বহুদিন থেকে।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে বিস্তারিত:

চাঁদপুর: জেলার ৪০ গ্রামে শুক্রবার উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আজহা। করোনাভাইরাসের কারণে ঈদগাহে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত না হলেও স্থানীয় প্রতিটি মজিদেই হয়েছে ঈদ জামায়াত। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামায়াত করার কথা থাকলেও অনেক মসজিদেই যথাযথভাবে মানা হয়নি সামাজিক দূরত্ব।

শুক্রবার হাজীগঞ্জের সাদ্রা দরবার শরীফ সংলগ্ন বায়তুল মামুর জামে মসজিদে সকাল পৌনে ৮ টায় ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। ঈদের নামাজে ইমামতি করেন, সাদ্রা রহমানিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা কাউছার হামিদ নেছারী। এ সময় শতাধিক মুসল্লি ঈদের জামায়াতে অংশ নেয়। এছাড়া ভিন্ন ভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। নামাজ শেষে দেশের শান্তি কামনায় মোনাজাত করা হয়। পরে পশু কোরবানি করেন সামর্থ্যবানরা।

ঈদ উদযাপিত হওয়া চাঁদপুরের গ্রামগুলোর মধ্যে রয়েছে হাজীগঞ্জ উপজেলার বলাখাল, শ্রীপুর, মনিহার, বরকুল, অলীপুর, বেলচোঁ, রাজারগাঁও, জাকনি, কালচোঁ, মেনাপুর, ফরিদগঞ্জ উপজেলার শাচনমেঘ, খিলা, উভারামপুর, পাইকপাড়া, বিঘা, উটতলী, বালিথুবা, শোল্লা, রূপসা, বাশারা, গোয়ালভাওর, কড়ইতলী, নয়ারহাট, মতলবের মহনপুর, এখলাসপুর, দশানী, নায়েরগাঁও, বেলতলীসহ কচুয়া ও শাহরাস্তির বেশ কয়েকটি গ্রাম।

পটুয়াখালী: জেলার ২৮ গ্রামের ২৫ হাজার মানুষ শুক্রবার ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন। সদর উপজেলার বদরপুর ও ছোট বিঘাই, গলাচিপা উপজেলার সেনের হাওলা, পশুরিবুনিয়া, নিজ হাওলা ও কানকুনি পাড়া, বাউফল উপজেলার মদনপুরা, শাপলাখালী, রাজনগর, বগা, ধাউরাভাঙ্গা, সুরদী, চন্দ্রপাড়া, দ্বি-পাশা, কনকদিয়া সাবুপুরা, বামনিকাঠী, বানাজোড়া ও আমিরাবাদ এবং কলাপাড়া উপজেলার দক্ষিণ দেবপুর, পাটুয়া, মরিচবুনিয়া, নাইয়া পট্টি, নিশানবাড়িয়া, শাফাখালী, তেগাছিয়া, ছোনখোলা ও বাদুরতলী গ্রামের মানুষরা আগাম ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন। এসব গ্রামের মধ্যে ঈদের প্রধান নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে বদরপুর দরবার শরীফের মসজিদে। সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠেয় নামাজে ইমামতি করেন মসজিদের খতিব মাওলানা মো. শফিকুল ইসলাম আবদুল গনি।

বদরপুর দরবার শরীফের খতিব মাওলানা মো. শফিকুল ইসলাম আবদুল গনি জানান, বিশ্বের অন্যান্য মুসলিম দেশের সঙ্গে সংগতি রেখে ৯২ বছর ধরে তারা রোজা রাখেন এবং ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহা উদযাপন করে আসছেন।

হরিণাকুণ্ডু (ঝিনাইদহ): ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে ১০টি গ্রামের অর্ধশত পরিবার ঈদুল আযহা উদযাপন করছেন আজ।

শুক্রবার সকাল ৮টায় এসব পরিবারের সদস্যরা শহরতলির চটকাবাড়ীয়া ঈদগা পাড়া জামে মসজিদ ও পায়রাডাঙ্গা গ্রামের পূর্বপাড়া জামে মসজিদে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেন। উপজেলার হরিণাকুণ্ডু, বৈঠাপাড়া, কুলবাড়িয়া, রামনগর, দখলপুর, পায়রাডাঙ্গা, চটকাবাড়ীয়াসহ ১০ গ্রামের অর্ধশত মুসল্লী মাওলানা সিরাজুল ইসলাম ও ইমদাদ হোসেনের ইমামতিতে ঈদ জামাতে অংশ নেন।

নামাজ আদায়কারী মুসল্লী আ ন ম বজলুর রহমান বলেন, ১৫ বছর ধরে তারা সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উদযাপন করছেন। করোনার প্রভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা স্থানে নামাজ আদায় করতে না পারায় এবার অনেক মুসল্লী ঈদের নামাজে শরীক হতে পারেননি।

লক্ষ্মীপুর: সামাজিক দূরত্ব মেনে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে লক্ষ্মীপুরের ১১টি গ্রামে শুক্রবার ঈদুল আজহা উদযাপিত হচ্ছে। রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও, জয়পুরা, বিঘা, বারো ঘরিয়া, হোটাটিয়া, শরশোই, কাঞ্চনপুর ও রায়পুর উপজেলার কলাকোপা ও সদর উপজেলার বশিকপুরসহ ১১টি গ্রামের প্রায় এক হাজার মুসল্লী আজ ঈদুল ফিতর উদযাপন করছেন। সকাল ৭টায় রামগঞ্জ উপজেলার খানকায়ে মাদানিয়া কাসেমিয়া মাদ্রাসায় ও নোয়াগাঁও বাজারের দক্ষিণ-পূর্ব নোয়াগাঁও ঈদগাহ ময়দানে ঈদের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন মাওলানা রুহুল আমিন। এসব গ্রামের মুসল্লীরা ৪০ বছর ধরে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উদযাপন করে আসছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here